• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

Advertise your products here

Advertise your products here

Advertise your products here

গণপরিবহনে  মানছে না স্বাস্থ্যবিধি নির্দেশনা


Newsofdhaka24.com ; প্রকাশিত: সোমবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:৩৬ পিএম
গণপরিবহন

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের বেঁধে দেওয়া নির্দেশনা মানছেনা রাজধানী চলাচল রত বাস গুলো।
আসন ছাড়াও যাত্রীরা দাঁড়িয়ে যাচ্ছে, ঠাসাঠাসি করে  যাত্রী উঠানো হচ্ছে।
বাস চালক, যাত্রী, হেল্পার কারো মুখেই মাক্স নেই জীবানুনাশক হাতে দেওয়া তো দূরের কথা মানছে না কোনো নির্দেশনা।
লঞ্চ, ট্রেন ,লোকাল বাস সবকিছুরই একই রকমের অবস্থা। ট্রেন গণপরিবহন স্বাস্থ্য বিধি মানার কোনো আগ্রহ নেই জনগণের লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

 ১৬জানুয়ারি রবিবার গুলিস্থান, বাড্ডা ,রামপুরা, শান্তিনগর ,রাজধানীর নতুন বাজার ,কমলাপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় এ দৃশ্য লক্ষ করা যায়।

করোনার ঝুঁকি যানবাহন গুলোতে বেড়েই চলছে।
স্টপেজে বাসগুলো থামলেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে যাত্রীরা তাড়াহুড়ো করে উঠছে বাসগুলোয় ওঠার সময় বা নামার সময় দেয়া হচ্ছে না তাদের হাতে জীবানুনাশক।
যাত্রীদের কারোরই মাক্স নেই স্বাভাবিক সময়ের মতোই চলাচল করছে যাত্রীরা।
গণপরিবহনে করোনার স্বাস্থ্যবিধি নির্দেশনা নেই বললেই চলে।
কালের কণ্ঠকে, বলেন ভিক্টর ক্লাসিক এর চালক আনোয়ার ইসলাম যাত্রীরা মাক্স না পরলে আমাদের কিছু করার নেই।
তারা আরো বলছে যাত্রীদের চাপের কারণেই বাসে বেশি যাত্রী নিতে হচ্ছে পারছিনা স্বাস্থ্যবিধি মানতে।
বি আর টি এ বাসের স্বাস্থ্যবিধির নির্দেশনায় বলেছেন গণপরিবহনের যাত্রী, চালক ,সুপারভাইজার, কন্ডাক্টর ,হেল্পার ,টিকিট বিক্রয় কেন্দ্রের ব্যক্তিদের মাক্স এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার এর ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

গণপরিবহনে যাত্রীদের ওঠানামার ব্যবস্থা করতে হবে সারিবদ্ধ ভাবে দাঁড়িয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে।
জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করতে হবে যাত্রীরা ওঠা নামার শেষে।
মোটরসাইকেলের মালিকদের, যাত্রীদের হাতব্যাগ, মালপত্র জীবানুনাশক ছিটিয়ে জীবাণুমুক্ত করতে হবে। বাংলাদেশের সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ রাজধানীর বিভিন্ন ভ্রাম্যমাণ আদালত,  বাসে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে বলেছেন।
গতকাল ৪০ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে।
বি আর টি এর সাতটি ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অভিযান চালায়।
স্বাস্থ্যবিধি না মানার মনোভাব দেখা গেছে লোকাল ও কমিউটার ট্রেন এবং লঞ্চে।
করোনার স্বাস্থ্যবিধি কড়াকড়িভাবে মানা হচ্ছে আন্ত নগর ট্রেনে।
কমলাপুর রেলস্টেশনে মাক্স ছাড়া কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। অনেকেই ট্রেনে ওঠার পরে কোন যাত্রী মাক্স মুখে রাখছে না। চলন্ত ট্রেনে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কিনা তার দিকেও লক্ষ রাখতে হবে।

Newsofdhaka24.com / মফিদুল ইসলাম মিলন

জাতীয় বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ