• ঢাকা
  • শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৩ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

Advertise your products here

Advertise your products here

Advertise your products here

রোজা রাখলে কি হয়?


Newsofdhaka24.com ; প্রকাশিত: রবিবার, ১০ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২:২৬ পিএম
রোজা
রোজা রাখলে কি হয়,

মহান আল্লাহ তা'আলা পূর্ববর্তী নবীদের উম্মতের উপর রোজা ফরজ করেছিলেন। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর উম্মতের উপর ও রোজা ফরজ করেছেন। 

রোজা রাখলে কি হয়?
১/ আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন হয়।
২/ গুনাহ মাফ হয়।
৩/ নেক আমল হয়।

রোজা রাখলে কি হয় মহান আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কুরআনুল কারিমে কি বলছেন:

Surah: Al-Baqara, Ayat: 183

يٰٓأَيُّهَا الَّذِينَ ءَامَنُوا كُتِبَ عَلَيْكُمُ الصِّيَامُ كَمَا كُتِبَ عَلَى الَّذِينَ مِن قَبْلِكُمْ لَعَلَّكُمْ تَتَّقُونَ

Meaning :  হে ঈমানদারগণ! তোমাদের উপর রোজা ফরয করা হয়েছে, যেরূপ ফরজ করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তী লোকদের উপর, যেন তোমরা পরহেযগারী অর্জন করতে পার।

আল্লাহ কোরআনে বলছেন: তোমরা যেন পরহেজগারি বা তাকওয়া অর্জন করতে পারো। 
এখন পরহেজগারী বা তাকওয়া বলতে কি বোঝানো হয়েছে।

তাকওয়া বলতে আল্লাহর ভয়। একজন বান্দা যখন রোজা রাখবে আল্লাহ তার অন্তরে পরহেজগারি বা তাকওয়া দান করবেন। আল্লাহ যার অন্তরে তাকওয়া দান করবেন সে সকল পাপাচারি থেকে বিরত থাকবেন। আল্লাহর ভয় যার অন্তরে থাকবে সে আর ঘুষ খাইতে পারবে না, মদ খাইতে পারবেনা, মসজিদে আজান হলে নামাজ ছাড়তে পারবে না। মোটকথা আল্লাহ যা নিষেধ করেছেন তা থেকে বিরত থাকবে। এবং আল্লাহ যা আদেশ করেছেন তা সর্বদা করবে। 

তাকওয়া বা আল্লাহর ভয় কি আরও সহজভাবে আমরা উপলব্ধি করতে পারি:

একজন ওয়ারেন্টের আসামি পুলিশের ভয়ে তার আরামদায়ক বিছানা ছেড়ে জঙ্গলে নদীর ঘাটে পালিয়ে বেড়ায় মশার কামড় খায়, কষ্টের মাধ্যমে রাত্রি যাপন করে। 

মানুষ যখন গুনাহ করে মানুষের সামনে করতে লজ্জা পায় এজন্য মানুষ গোপন স্থান খুঁজে নেয়, যাতে কেউ না দেখে, কিন্তু মহান আল্লাহ তাআলা সর্বক্ষণ সবকিছু একসাথে দেখতে পান। তাই কোন গুনাহ আল্লাহর অগোচরে সংঘটিত হয় না। ও বান্দা, আল্লাহর ভয়ে ইহকাল বা পরকাল কোথাও পালানোর জায়গা নেই। এটা বিশ্বাস করে যে খারাপ কাজ থেকে বিরত থাকবে এবং ভালো কাজ করবে তার নামই তাকওয়া বা আল্লাহর ভয়।

সাওম বা রোজা রাখলে মহান আল্লাহ তা'আলা এই তাকওয়া দান করার প্রতিশ্রুতি করেছেন। আমরা যেন সবাই রোজার হক আদায়ের মাধ্যমে তাকওয়া অর্জন করে ইহকাল পরকালের নাজাত ও মুক্তি লাভ করতে পারি, আমিন।

Newsofdhaka24.com / নিউজ অব ঢাকা

ইসলাম বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ